Home EXCLUSIVE কলকাতা সফরের দ্বিতীয় দিনে বেলুরমঠে বক্তব্য রাখলেন মোদী

কলকাতা সফরের দ্বিতীয় দিনে বেলুরমঠে বক্তব্য রাখলেন মোদী

105
0

আনন্দ মুখোপাধ্যায় :: স্পট নিউজ লাইভ :: ১২ই,জানুয়ারি ::কোলকাতা ::

প্রধানমন্ত্রী মোদী আজ রাত পোহাতেই স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনের সকালে প্রধানমন্ত্রী বিশেষ পুজো দেন বেলুড় মঠে। মঠে পৌঁছতেই তিনি রামকৃষ্ণ আশ্রমে যান। তার আগে খানিকক্ষণ সময় কাটান স্বামী বিবেকানন্দের আশ্রমে। সেখানে পুজো অর্পণ করেন মোদী। এরপরই বেলুড়মঠে বক্তব্য রাখলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রধানমন্ত্রী : আমি আজ সকালবেলা স্বামী বিবেকানন্দের ঘরে গিয়েছিলাম। এটা আমার জীবনের অন্যতম শ্রেষ্ঠ মুহূর্ত। আমার সেই ঘরে দাঁড়িয়ে মনে হচ্ছিল যে তিনি আমাকে আরও বেশি কাজ করার জন্যে বলছএন। আশীর্বাদ দিচ্ছেন। আমি সেই আশীর্বাদ নিয়েই আমি ভারতকে আরও এগিয়ে যাবো ।

স্বামীজি বলতেন ভারত মাকে নিজের মা হিসাবে দেখ। আমিও দেশের যুব সমাজকে এই আহ্বান করছি। স্বাধীনতার পর থেকে আমরা ‘অধিকার’ নিয়ে শুনে আসছি। তবে এখন অধিকারের পাশাপাশি ‘কর্তব্য’-এর উপর নজর দিতে হবে। স্বামী বিবেকানন্দের ভারতকে শ্রেষ্ট করে তোলার সেই স্বপ্নকে পূর্ণ করতে এই কর্তব্য আমাদের পালন করতে হবে।

দেশে জল বাঁচানো হোক বা গরিবদের কাছে সাহায্য পৌঁছে দেওয়া, তা নিয়ে মানিষের মনে জাগ্রত হতে হবে। আমরা এই আইন না আনলে বিশ্ব জানতে পাপত না যে সে দেশে কী ভাবে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে। এখন পাকিস্তানকে জবাব দিতে হবে যে এই ৭০ বছরে তাদের দেশএর সংখ্যালঘুরা কোথায়! তা সত্ত্বেও রাজনৈতিকরা এই আইন নিয়ে ভ্রম ছড়াচ্ছেন ।

পাকিস্তানে যে ভাবে সেদেশের সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার হচ্ছে তা সারা বিশ্বে ছডি়য়ে দিচ্ছে ভারতের যুব সমাজ। উত্তর-পূর্ব আমাদের দেশের গর্ব। এই নতুন আইনের কোনও বিরূপ প্রভাব যাতে সেখানে না পড়ে তার পুরো ব্যবস্থা কেন্দ্র করছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন তবে এই সহজ কথাটি রাজনীতি করা মানুষেরা বুঝতে চায় না। বুঝতে পারলেও রাজনীতি করতে বুঝতে চায় না। কিছু তরুণরা এই বিষয়ে ভুল ধারণা পোষণ করছেন। আজও যে কোনও মানুষ, সে ভগবান মানুক না মানুক, সে যদি ভারতের সংবিধানকে মানে তবে সঠিক উপায় ও পদ্ধতিতে ভআরতের নাগরিকত্ব নিতে পারে।

তিনি বলেন আমার সরকার শুধু মহাত্মা গান্ধীর বলা কথা অনুসরণ করেছি। আমরা কারোর নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নিচ্ছি না। আমরা এই আইনের দ্বারা আমরা নাগরিকত্ব প্রদান করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here