Home EXCLUSIVE ইমরান খান সাবধান আর সময় নেই !

ইমরান খান সাবধান আর সময় নেই !

234
0

BREAKING NEWS

আনন্দ মুখোপাধ্যায় ; স্পট নিউজ ; ২৮শে,জুন ; কোলকাতা ;;

আজকে আমি যে প্রতিবেদনটি আপনাদের দেখাবো তার বিষয়টি অত্যন্ত গুরু গম্ভীর হলেও আমরা এখানে কোনো ভাবেই দেশের গোপনীয়তার সীমা কোথাও লঙ্ঘন করিনি । ভারতমাতা ও তার বীর সৈনিকদের আমরা সর্বদাই শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি ।

আমাদের এই প্রতিবেদন এর সবটুকুই ইন্টারনেট থেকে গ্রহণ করেছি কিন্তু সেই সব ঘটনাক্রমকে এক জায়গায় সাজিয়ে নিয়ে একজন সাংবাদিক হিসাবে তার ময়না তদন্ত করেছি এবং একান্তই ব্যক্তিগতভাবে এই রিপোর্ট আমরা পেশ করছি আপনাদের কাছে আপনারাও একবার ভেবে দেখবেন । তাহলে আসুন শুরু করি আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন :

আজ আমাদের প্রতিবেদনের বিষয় – তবে কি এবার অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের মধ্যেই আসছে ? নাহলে কেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নিয়াজি থেকে আমি জনতা এতো সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে ? আজ আমরা এই বিষয়ের ময়না তদন্ত করতে চলেছি – দেখুন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কি বলছেন

তবে কি ভারত সত্যিই পাক অধিকৃত কাশ্মীরে কোনো কড়া দাওয়াই এর কথাই ভাবছে কারণ ওখান থেকেই তো ক্রমাগত জঙ্গি হানা শানানো হচ্ছে ।

পাকিস্তান এটা ভালো করেই জানে যে একবার ভারত যদি একবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ওপর তাদের শাসন ফের একবার কায়েম করতে পারে তাহলে কিন্তু আন্তর্জাতিক দরবারে পাকিস্তানের পাশে কেউই থাকবেনা কারণ ভারত স্বাধীন হবার সময় কাশ্মীরের রাজা হরি সিংহ তাঁর রাজ্যকে ভারতের অন্তর্ভুক্ত করে দেন আর তার সমস্ত কাগজপত্র ভারতের হাতে মজুদ রয়েছে ।

আমরা যখন দূরদর্শনে আবহাওয়ার খবর দিই তখন কিন্তু প্রতিদিনই পাক অধিকৃত কাশ্মীরের আবহাওয়ার খবর সম্প্রচার করে থাকি আর তাই নিয়েও ওই দেশে বিস্তর ক্ষোভ শুনুন সেই ক্ষোভের কথা পাকিস্তানী রাজনৈতিক ভাষ্যকার ডঃ শহীদ মাসুদ এবং পাকিস্তানী বিশিষ্ট সাংবাদিক আমির জিয়ার মুখে

আমাদের প্রাসঙ্গিক ভাবেই এখন জানতে হবে ওই অধিকৃত কাশ্মীরের এল ও সি তে ঠিক কি চলছে

কিন্তু কেন পাকিস্তান বলছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী যা বলেন তা করেই দেখান । উনি শুধু মুখেই বলেননা । যদি ২০১৪ সল্ থেকে আমরা ক্রনোলজি অর্থাৎ ঘটনা ক্রম এর দিকে তাকাই তাহলে কি দেখবো ? সরকার ও সেনাবাহিনীর খোলা মন্তব্য শুনলেই মনে হতে পারে সেই দিন বোধয় আর বেশি দূরে নয় – দেখাব্ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও সংসদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত সাহ কি বলছেন –

শোনাবো পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বর্তমান রাজনৈতিক নেতাদের কি ভাষ্য সামনে এসেছে – রাজনৈতিক নেতা শওকত আলী কাশ্মীরি কি বলছেন ? তাঁরা তো পরিষ্কারই বলছেন পাক সরলকার এই অঞ্চলের উন্নতির জন্য কিছুই করেননি উল্টে ভারতের বিরুদ্ধে জঙ্গি হানার জন্য অধিকৃত কাশ্মীরকে ট্রেনিং ক্যাম্প বানিয়েছেন

আর এই কথাটা জানে বলেই ভারত বালাকোট সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেছে কারণ পাকিস্তানকে ভারত পরিষ্কার বুঝিয়ে দিতে চাইছে যে অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের জায়গা ওখানে এই সব বেয়াদপি ভারত আর বরদাস্ত করবে না । আর ভারত পাকিস্তানকে বুঝিয়ে দিয়েছে যেমন নিজের জায়গায় অন্যের বেয়াদপি ভারত সহ্য করবেনা তেমনই এটাও বুঝিয়ে দিয়েছে যে ভারত দরকার হলে সম্মুখ সমরেও প্রস্তুত ।

আর সারা বিশ্ব এটাও জানে যে পুরোদমে যুদ্ধ লড়ার জন্য মাত্র দু দিনের রসদও পাকিস্তানের কাছে নেই তাই পুলওয়ামার হামলার পরেই ভারত বালাকোট ঢুকে বুঝিয়ে দিলো দরকার হলে ভারত আরও শক্ত হতে পারে ।
দেখুন সেদিনের সেই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের সেই ভিডিও

বন্ধুরা ভারত কিন্তু ২০১৪ থেকে ২০২০ এই ৬ বছরে ধীরে ধীরে নিজের সংকল্পকে ক্রমেই শক্ত করেছে অন্তত এই ক বছরের ঘটনাক্রমকে অত্যন্ত নিবিড় ভাবে দেখে একজন সাংবাদিক হিসেবে
আমার মনে হয়েছে ভারত কিন্তু তৈরী হচ্ছে আর সেটা বুঝতে পেরেই কিন্তু এখন সারা পাকিস্তান জুড়েই চলছে সরগরম আলোচনা কি হবে ?

হ্যা পাকিস্তান একটি বড় ধাক্কার জন্যে তৈরী থাকুক তবে আমার নিজস্ব মত এখনই নয় ভারত আরও হয়তো কিছুটা সময় নেবে কিন্তু ভারতের মানচিত্র যে পূরণ হবেই তাতে কোনো সন্দেহ নেই –

সঙ্গের ভিডিওটি অবশ্যই দেখুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here